বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন-গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

মেনু নির্বাচন করুন

Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ জুন ২০১৮

মোঃ হামিদুল হক

মোঃ হামিদুল হক ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দের ১১ ফেব্রুয়ারি লালমনিরহাট সদর উপজেলার সাপটানানামাটারি গ্রামে এক ঐতিহ্যবাহী মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহণ করেন। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, বাংলাদেশ সংবিধানের স্বাক্ষরদাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের পুত্র। তাঁর মা হাসনাবানু একজন গৃহিনী। লালমনিরহাট মডেল হাইস্কুল ও কারমাইকেল কলেজ রংপুর থেকে যথাক্রমে এসএসসি ও এইচএসসি পাসের পর তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে প্রাণিবিদ্যা বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। পরবর্তিতে তিনি বাংলাদেশ উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষা বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

 

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে প্রাণিবিদ্যা বিষয়ের প্রভাষক হিসেবে তিনি ১ নভেম্বর ১৯৮৪ খ্রিঃ থেকে কর্মজীবন শুরু করেন। পরবর্তিতে তিনি সরকারি জসমুদ্দীন কাজি আব্দুল গনি ডিগ্রি কলেজ, পাটগ্রাম, লালমনিরহাট, রাজশাহী কলেজ, রাজশাহী, কারমাইকেল কলেজ, রংপুর-এ দক্ষতার সাথে শিক্ষকতার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। ১ মার্চ ২০১১ থেকে ৭ ডিসেম্বর ২০১৪ খ্রিঃ পর্যন্ত তিনি ঐতিহ্যবাহী সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, রংপুর এ অধ্যক্ষ হিসাবে কর্মরত ছিলেন। এ সময়ে তিনি সাফল্যজনক ভাবে চারবছর মেয়াদী শিক্ষায় স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর কোর্স চালু করেন। তিনি রংপুর বিভাগের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের শিক্ষা কার্যক্রম তদারকি, বিএড ও এমএডসহ অন্যান্য সংক্ষিপ্ত প্রশিক্ষণ কোর্সের শিক্ষার্থী, শিক্ষাকর্মকর্তা ও শিক্ষক প্রশিক্ষণার্থীগণের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন ধরণের প্রশিক্ষণ পরিচালনা করেন। এছাড়াও বিভিন্ন সেমিনার, কর্মশালা আয়োজন, আন্তঃপ্রাতিষ্ঠানিক ও সরকারের বিভিন্নপ্রকার নিয়ন্ত্রক সংস্থার সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। এ প্রতিষ্ঠানে সফলতার সাথে লাইফস্কিল বেসড এডুকেশন (এলএসবিই) প্রশিক্ষণ, কন্টিনিউয়াস প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট (সিপিডি), ইনক্লুসিভ এডুকেশন প্রশিক্ষন, ওয়াটার, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ), ডিজিটাল কনটেন্ট ডেভেলপমেন্ট, সেকেন্ডারি টিচিং সার্টিফিকেট (এসটিসি) কোর্স আয়োজনসহ শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ আধুনিকায়ন ও গতিশীল করতেঅসাধারণ ভূমিকা রাখেন।

 

তিনি ৮ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর বাংলাদেশ এর পরিচালক (প্রশিক্ষণ) পদে যোগদান করেন। এ সময়ে তিনি একজন সুদক্ষ শিক্ষা প্রশাসক হিসেবে মাধ্যমিক, উচ্চ শিক্ষা পর্যায়ে সরকারের শিক্ষানীতি বাস্তবায়ন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে বিভিন্ন ধরণের নীতিমালা প্রণয়নে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে সহায়তা প্রদান, শিক্ষার গুনগত ও পরিমানগত মান বজায় রাখা ও নিশ্চিতকরণ, বিভিন্ন স্তরের শিক্ষক্রম পরিমার্জনের জন্য যাচাই ও মূল্যায়নে সহায়তা প্রদান, বিভিন্ন ধরণের শিক্ষা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান যেমন মাউশি, কলেজ, স্কুল, প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, প্রকল্প ইত্যাদিতে কর্মরত শিক্ষক ও কর্মকর্তাবৃন্দের জন্য দেশে ও বিদেশে প্রশিক্ষণের আয়োজনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিক রাখেন।

 

তিনি ১২ জানুয়ারি ২০১৫ খ্রিঃ হতে ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ পর্যন্ত জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) এর মহাপরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। নায়েম পরিচালিত বুনিয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্সসহ অন্যান্য সকল প্রশিক্ষণ কোর্সের মূখ্য উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন, নায়েমের প্রশাসন প্রধান হিসেবে প্রশাসনের সকল কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা; নায়েমের বোর্ড ও গভর্ণরস-এর নিকট বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন; আয়নব্যয়ন কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন; শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্দেশিত নীতিমালা বাস্তবায়ন; শৃঙ্খলা বজায় ও নায়েমকে সার্বিকভাবে কার্যকর করার পদক্ষেপ গ্রহণ; অনুষদবৃন্দকে পরিচালনা, পেশাগত সহায়তা প্রদান, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সাথে সংযোগ স্থাপনসহ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

 

প্রফেসর হক পেশাগত জীবনে দেশে বিদেশে